বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৫৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কাশ্মীরের জামা মসজিদ বন্ধ করে জুমার নামায পড়তে দেয়নি ভারত জুমার আলোচনায় খতিবদের ডেঙ্গু-গুজব-বন্যা নিয়ে বক্তব্য রাখার আহ্বান ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর মসজিদে গুলি করতে গিয়ে উল্টো ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন সাবেক মার্কিন সেনা! ইন্টারনেট সেবা নিতে চাইলে কোরআনে শপথ নিতে হবে মসজিদে নামাজ পড়তে গিয়ে আয়ের একমাত্র অবলম্বন ভ্যানটি চুরি হয় বিমানবন্দরে লাগেজ হারিয়ে গেলে ফিরে পাওয়ার উপায় আমাদের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতির সাথে হিজরী সন সম্পৃক্ত: চরমোনাই পীর The story of success -Ashraf Ali Sohan চিত্রনায়িকা পরী মণি ও (এডিসি) সাকলায়েনের নতুন ভিডিও ফাঁস, দেখুন গোপালপুরে মসজিদে হামলায় বৃদ্ধ নিহত, সড়ক অবরাধ, আটক দুই কোম্পানীগঞ্জে দিনদুপুরে কলেজছাত্র অপহরণ ৪ দিন পরও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ বানিয়াচংয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের আবিস্কার নিয়ে বিজ্ঞান মেলা অনুষ্ঠিত খুলনায় স্কুল ছাত্রীর নগ্ন ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ায় যুবক গ্রেফতার

ভারতে বিতর্কিত এনআরসিতে জ্বলছে ভারত

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৪২ Time View

মুসলিম ভয়েস ডেস্ক: সদ্যপ্রণীত নাগরিকত্ব আইন সিএবি-এর প্রতিবাদে বর্তমানে উত্তাল ভারতের আসাম, ত্রিপুরা, মেঘালয় ও পশ্চিমবঙ্গসহ বেশ কয়েকটি রাজ্য। এসব রাজ্যে হরতাল, অবরোধ, ট্রেন-বাসে অগ্নিসংযোগসহ বিভিন্ন কর্মস‚চির মাধ্যমে কঠোর আন্দোলন গড়ে তুলেছেন সাধারণ মানুষ।

বিক্ষোভ চলছে খোদ রাজধানী দিল্লীতেও। গত বৃহস্পতিবার রাতে প্রেসিডেন্টের স্বাক্ষরের পরেই দেশের আইনে পরিণত হয়েছে বিতর্কিত নাগরিকত্ব বিল। এরই মধ্যে এই আইনের প্রতিবাদে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা ‘গণআন্দোলনে’ সাড়া দিয়েছেন পাঞ্জাব, দিল্লি, কেরালা, ছত্তিশগড় ও মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীরা। তারা এই আইন না মানার ঘোষণা দিয়েছেন।

দিল্লিতে ভারত বাঁচাও সমাবেশ করেছে দেশটির প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস। তারা সারা বিশ্বের এই আন্দোলন ছড়িয়ে দেয়ার জন্য তাদের বিদেশ শাখাগুলোর প্রতি নির্দেশ দিয়েছে। ক্যাববিরোধী গণআন্দোলন বন্ধে ইতোমধ্যেই আসাম, ত্রিপুরা, মেঘালয়, মণিপুরের একাধিক জায়গায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে মোবাইল ও ইন্টারনেট পরিষেবা।

রাজপথে বিক্ষোভে নেমেছে হাজার হাজার মানুষ। পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছেন অন্তত ৫ জন বিক্ষোভকারী। এই পরিস্থিতিতে এই সমস্ত অঞ্চলে ভ্রমণের সময় গাড়িতে ভাঙচুর চালানো হতে পারে যেকোনও সময়। তাই আপাত স্পর্শকাতর অঞ্চলগুলিতে পা না রাখার পরামর্শ দিয়েছে যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র। জাতিসঙ্ঘ ক্যাবকে বৈষম্যমূলক আখ্যায়িত মুসলিমদের স্বার্থ সংরক্ষণের আহ্বান জানিয়েছে।

যুক্তরাজ্যের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ‘নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে ভারতের বেশ কিছু রাজ্যে বিক্ষোভ হচ্ছে। খবরে জানা গেছে, ভারতের উত্তর-প‚র্ব, বিশেষ করে আসাম ও ত্রিপুরাতে বিক্ষোভ বড় আকার নিয়েছে। গুয়াহাটিতে কারফিউ জারি করা হয়েছে ও আসামের ১০ জেলায় মোবাইল পরিষেবা বন্ধ।

আগামী ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। তাই এই এলাকায় বেড়াতে গেলে সমস্যায় পড়তে পারেন পর্যটকরা।’ যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কবার্তাতেও প্রায় একই কথা লেখা রয়েছে। তবে তারা আসামে এই মুহ‚র্তে কাউকে বেড়াতে যাওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। নাগরিকত্ব (সংশোধিত) আইন বিরোধী বিক্ষোভে গত কয়েকদিন ধরে অগ্নিগর্ভ হয়ে রয়েছে আসাম। ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

আটক করা হয়েছে সহস্রাধিক মানুষকে। গ্রেফতার হয়েছেন ৬৫ জন। গোলমাল থামাতে গিয়ে বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মীও আহত হয়েছেন। উত্তর-পূর্ব ভারতের এই অশান্ত পরিবেশ নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মহলও। শুক্রবার বাংলাদেশের যুগ্ম কমিশনারের গাড়িতে ভাঙচুর চালানোর খবর প্রকাশ্যে আসে।

ওই দিনই ভারত সফর বাতিল করেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। আগামী সপ্তাহে গুয়াহাটিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সম্মেলন স্থগিত রাখছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে। জাতিসংঘের মানবাধিকার দফতরও দাবি করেছে, দেশ থেকে মুসলিম নাগরিকদের সরাতে ভারতের এই নতুন নাগরিকত্ব আইন যথেষ্ট ‘বৈষম্যমূলক’।

মোদি সরকারের নয়া নাগরিকত্ব বিল ক্যাব-এর প্রতিবাদে গতকাল সকাল থেকেই পশ্চিমবঙ্গে বিক্ষোভকারীরা কোথাও রেললাইন রুখে, কোথাও জাতীয় সড়কে আগুন জ্বালিয়ে প্রতিবাদ করে। কোথাও আবার টায়ার জ্বালিয়ে এবং কুশপুতুল পুড়িয়েও প্রতিবাদ চলছে। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে কখনও লাঠিচার্জ, কখনও বা টিয়ার গ্যাসের শেল ফাটাতে হয় পুলিশকে।

নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে গতকাল ৫টি খালি ট্রেনে লাগানো হয়েছে আগুন। মুর্শিদাবাদ জেলার লালগোলা রেল স্টেশনে ট্রেন জ্বালিয়ে দেওয়ার ওই ঘটনায় পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। এই পরিস্থিতিতে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মানুষকে শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ-আন্দোলন করার আবেদন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ভুল বোঝাবুঝি তৈরি করবেন না, উত্তেজনা বা আতঙ্ক ছড়াবেন না, সা¤প্রদায়িক উস্কানিতে পা দেবেন না, এভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আবেদন করতে দেখা যায় বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে। একই বার্তা দেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ও। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপালের আবেদনকে উপেক্ষা করেই নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে গোটা রাজ্য। সংবাদ সংস্থা আইএএনএস জানিয়েছে, মুর্শিদাবাদ জেলার পোড়াডাঙা, কুলগাছী বটতলা, জঙ্গিপুর এবং ফারাক্কা স্টেশন এবং হাওড়া জেলার দক্ষিণ পূর্ব রেলপথে বাউরিয়া ও নলপুর স্টেশনগুলিতে দফায় দফায় রেল অবরোধ করে বিক্ষোভকারীরা।

পাশাপাশি তারা আগুন লাগিয়ে দেয় রাজ্য পরিবহন দফতরের অধীনস্থ তিনটি সরকারি বাস সহ পনেরোটি বাসে। প্রবল উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে মুখ খুললেন বাংলার বিদ্বজ্জনেরা। একইসঙ্গে বিক্ষোভের নামে হিংসাত্মক ঘটনারও নিন্দা করেছেন তারা। শনিবার বিকেলে ‘আলোপৃথিবী’ নামে একটি সংগঠনের ব্যানারে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন বিদ্বজ্জনেরা।

এই সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন শুভাপ্রসন্ন, আবুল বাসার, জয় গোস্বামী, সুবোধ সরকার, প্রতুল মুখোপাধ্যায়, অভীক মজুমদার প্রমুখ। এ ছাড়া স্বাস্থ্যের কারণে উপস্থিত থাকতে না পারলেও বার্তা পাঠিয়েছেন সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়। একযোগে প্রত্যেকেই মোদী সরকারের নয়া নাগরিকত্ব বিলের তীব্র প্রতিবাদ করেন। এই বিলকে ‘বৈষম্যমূলক’ আখ্যা দিয়েছেন তারা।

এনআরসি-ক্যাব বিরোধী আন্দোলনে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওপরে আস্থা রাখার জন্য রাজ্যবাসীর কাছে আবেদন করেছেন সাহিত্যিক আবুল বাসার। তার বক্তব্যের প্রতিধ্বনী শোনা গিয়েছে প্রতুল মুখোপাধ্যায়ের বক্তব্যে। তিনি বলেন, ‹এই আন্দোলনে মমতাকে চাই।

তেমনই গোটা ভারতের মানুষকে একসঙ্গে ক্ষোভ দেখাতে হবে। না হলে এই বিপদকে দ‚র করা যাবে না।› কবীর সুমন বলেন, রাজ্যের মানুষের প্রতি আবেদন করে বলেন ‹মরে গেলেও একটিও ডকুমেন্ট জমা দেবেন না।› ভারতে নাগরিকত্ব আইনের প্রভাব সম্পর্কে মার্কিন উদ্বেগ ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রভাব সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা পর্যবেক্ষণের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত মার্কিন ক‚টনীতিক স্যাম ব্রাউনব্যাক। গত শুক্রবার তিনি বলেন, ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

পরিচালনা পর্ষদ

সম্পাদক ও প্রকাশক:
Admin
© ২০২০ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত.মুসলিম ভয়েস কোপেরেটিভ লি.
Design By NooR IT
themesba-lates1749691102