শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কাশ্মীরের জামা মসজিদ বন্ধ করে জুমার নামায পড়তে দেয়নি ভারত জুমার আলোচনায় খতিবদের ডেঙ্গু-গুজব-বন্যা নিয়ে বক্তব্য রাখার আহ্বান ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর মসজিদে গুলি করতে গিয়ে উল্টো ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন সাবেক মার্কিন সেনা! ইন্টারনেট সেবা নিতে চাইলে কোরআনে শপথ নিতে হবে মসজিদে নামাজ পড়তে গিয়ে আয়ের একমাত্র অবলম্বন ভ্যানটি চুরি হয় বিমানবন্দরে লাগেজ হারিয়ে গেলে ফিরে পাওয়ার উপায় আমাদের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতির সাথে হিজরী সন সম্পৃক্ত: চরমোনাই পীর The story of success -Ashraf Ali Sohan চিত্রনায়িকা পরী মণি ও (এডিসি) সাকলায়েনের নতুন ভিডিও ফাঁস, দেখুন গোপালপুরে মসজিদে হামলায় বৃদ্ধ নিহত, সড়ক অবরাধ, আটক দুই কোম্পানীগঞ্জে দিনদুপুরে কলেজছাত্র অপহরণ ৪ দিন পরও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ বানিয়াচংয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের আবিস্কার নিয়ে বিজ্ঞান মেলা অনুষ্ঠিত খুলনায় স্কুল ছাত্রীর নগ্ন ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ায় যুবক গ্রেফতার

সৌদি আরবে চুরির অভিযোগে গ্রেফতার ৮ ভারতীয়

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২০
  • ৩৭৬ Time View

সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে বৈদ্যুতিক তার ও অন্যান্য সরঞ্জাম চুরির অভিযোগে ৮ ভারতীয় নাগরিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। চুরির শাস্তি হিসেবে সৌদি আইন অনুযায়ী এসব ভারতীয়দের হাত কেটে নেয়া হতে পারে।

রিয়াদ পুলিশের বরাত দিয়ে সৌদি পাবলিক সিকিউরিটি অধিদফতর ১১ এপ্রিল শনিবার এই তথ্য প্রকাশ করে। রিয়াদ পুলিশের গণমাধ্যম শাখার মুখপাত্র লে. কর্নেল সাকের আল তুয়াইজরি সৌদি গণমাধ্যমকে বলেছেন, সংঘবদ্ধ এই চোরের দলের সদস্যদের সবাই ভারতীয়। তাদের বয়স ৩০-৫০ বছরের মধ্যে। তারা দীর্ঘদিন ধরে রিয়াদে বৈদ্যুতিক তার চুরি করে আসছিলেন।

সব খবর সবার আগে পেতে গ্রুপে জয়েন করুন 

আল তুয়াইজরি আরও বলেছেন, রিয়াদ মহানগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে এই চোরের দল প্রায় তিন কোটি ৭০ লাখ রুপির বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম চুরি করেছে। তাদেরকে বিচারের আওতায় আনা হয়েছে।

এদিকে সৌদি আরবের ইসলামী আইনে চুরির অপরাধে ওই ৮ ভারতীয়র কী শাস্তি হতে পারে জানতে চাইলে প্রায় দুই দশক ধরে রিয়াদে থাকেন এরকম একজন ব্যবসায়ী বলেন, চুরির অভিযোগ প্রমাণিত হলে সাধারণত চোরের হাত কেটে দেয়া হয়। এখানে যেহেতু সংঘবদ্ধভাবে কোটি টাকা মূল্যের চুরি সংঘটিত হয়েছে, এজন্য হাত কেটে নেয়ার পর মেয়াদে কারাদণ্ড ও জরিমানা হতে পারে।

আরো পড়ুন-সৌদিতে করোনা রোগীদের জন্য জমজমের পানি বিতরণ

সামাজিক ও জাতীয় দায়িত্ববোধ থেকে হারামাইন প্রেসিডেন্সির প্রধান প্রফেসর ড. শায়েখ আবদুর রহমান বিন আব্দুল আজিজ আস সুদাইস করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের জন্য জমজমের পানি সরবরাহের নির্দেশ দিয়েছেন।

শায়েখ সুদাইসের ঘোষণার পর থেকে সৌদি আরবের বিভিন্ন হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত রোগীদেরকে জমজমের পানি সরবরাহ শুরু হয়েছে। এছাড়া মক্কা ও মদিনা অধিদপ্তরও তাদের নিজস্ব তত্ত্বাবধানে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের জন্য জমজমের পানি বিতরণ করছেন।

সম্প্রতি মদিনা সফরকালে সেখানে কর্তব্যরত নিরাপত্তারক্ষীদের মাঝে জমজমের পানি বিতরণ করেন হারামাইনের প্রেসিডেন্ট শায়েখ সুদাইস।

উল্লেখ্য, জমজম মসজিদে হারামের কাছে অবস্থিত একটি প্রসিদ্ধ কূপ। পবিত্র কাবা ও এই কূপের মধ্যে দূরত্ব মাত্র ৩৮ গজের। হজ ও উমরা আদায়কারীর জন্য বিশেষভাবে এবং পৃথিবীর সব মুসলমানের জন্য সাধারণভাবে জমজমের পানি পান করা মুস্তাহাব। সহিহ হাদিসে ইরশাদ হয়েছে, নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নিজে জমজম থেকে পানি পান করেছেন। -সহিহ বোখারি: ১৫৫৬

সাহাবি হজরত আবু জর (রা.) বর্ণনা করেন, নবী করিম (সা.) বলেছেন, ‘জমজমের পানি বরকতময়, স্বাদ অন্বেষণকারীর খাদ্য।’ -সহিহ মুসলিম: ২৪৭৩

কোনো কোনো হাদিসে জমজমের পানিকে ‘রোগীর ঔষধ’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। আম্মাজান হজরত আয়েশা (রা.) বর্ণনা করেন, হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) নিজের সঙ্গে পাত্রে ও মশকে করে জমজমের পানি বহন করতেন। তা অসুস্থদের ওপর ছিটিয়ে দিতেন এবং তাদের পান করাতেন। -সুনানে তিরমিজি

এ বর্ণনা থেকে এ কথাও জানা যায় যে, জমজমের পানি বহন করা জায়েজ। আর যারা জমজম কূপের কাছে নয়, তাদের পান করানো নববী সুন্নত।

জমজমের পানি পান করার সময় একটি বড় কাজ হলো- দোয়া করা। হজরত জাবির (রা.) বর্ণনা করেন, হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘জমজমের পানি যে উদ্দেশ্য নিয়ে পান করবে তা পূরণ হবে।’ -সুনানে ইবনে মাজাহ: ৩০৬২

বিখ্যাত বুজুর্গ ও মনীষীরা জমজমের পানি পানের সময় বিভিন্ন দোয়া করতেন।

আরো পড়ুন: করোনাক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় ৪১বার ভয়াবহ টর্নেডোর আঘাত, নি’হত ৩৩ !

একদিকে নভেল করোনাভাইরাসের হানায় মৃত্যু উপত্যকায় পরিণত হয়েছে গোটা যুক্তরাষ্ট্র, তার মধ্যেই দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে তাণ্ডব চালিয়েছে শক্তিশালী টর্নেডো। এতে প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ৩৩ জন, বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন ১০ লাখেরও বেশি মানুষ।

গত রোববার দিনের শুরু থেকেই মধ্য টেক্সাসে আঘাত হানতে শুরু করে টর্নেডো। সেখানে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়ে এটি একে একে লুইজিয়ানা, আরাকানসাস, মিসিসিপি, টেনেসি, আলাবামা, জর্জিয়া ও ক্যারোলিনার ওপর দিয়ে যায়। এর আঘাতে শুধু মিসিসিপি অঙ্গরাজ্যেই প্রাণ হারিয়েছেন ১১ জন।

এছাড়া দক্ষিণ ক্যারোলিনায় মারা গেছেন নয়জন। সেখানে ঝড়ের আঘাতে উপড়ে পড়েছে অসংখ্য গাছপালা। মিসিসিপি, লুইজিয়ানা, আলাবামার গভর্নরেরা অঙ্গরাজ্যগুলোতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় এ অঞ্চলে অন্তত ৪১বার টর্নেডো আঘাত হেনেছে বলে জানা গেছে।

সোমবার সকালেও উত্তর ফ্লোরিডা, ভার্জিনিয়া ও ক্যারোলিনায় বেশ কয়েকবার ঝড়-বজ্রঝড় আঘাত হেনেছে। নিউ জার্সি থেকে ফ্লোরিডায় ব্যাপক ঝড় ও নিউ ইংল্যান্ডে ভারী বর্ষণ অব্যাহত থাকায় মারাত্মক ঝুঁকিতে রয়েছেন এ অঞ্চলের অন্তত চার কোটি মানুষ।

এছাড়া মিসিসিপি নদীর তীরবর্তী ১৬ কোটি বাসিন্দাকেও সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। করোনার হানায় বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্র। এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৮১ হাজার ৯১৮ জন, মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৩ হাজার ৬০৮।

এই মহামারির কারণে ইতিহাসে প্রথমবার একসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যেই বিপর্যয় ঘোষণা করা হয়েছে।

সূত্র: এনবিসি নিউজ

সব খবর সবার আগে পেতে গ্রুপে জয়েন করুন 

cover photo, No photo description available.

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

পরিচালনা পর্ষদ

সম্পাদক ও প্রকাশক:
Admin
© ২০২০ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত.মুসলিম ভয়েস কোপেরেটিভ লি.
Design By NooR IT
themesba-lates1749691102