বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:০০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কাশ্মীরের জামা মসজিদ বন্ধ করে জুমার নামায পড়তে দেয়নি ভারত জুমার আলোচনায় খতিবদের ডেঙ্গু-গুজব-বন্যা নিয়ে বক্তব্য রাখার আহ্বান ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর মসজিদে গুলি করতে গিয়ে উল্টো ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন সাবেক মার্কিন সেনা! Splash Chia Seeds To Supercharge Your Metabolism, Burn Fat And Fight Inflammation ইন্টারনেট সেবা নিতে চাইলে কোরআনে শপথ নিতে হবে মসজিদে নামাজ পড়তে গিয়ে আয়ের একমাত্র অবলম্বন ভ্যানটি চুরি হয় বিমানবন্দরে লাগেজ হারিয়ে গেলে ফিরে পাওয়ার উপায় আমাদের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতির সাথে হিজরী সন সম্পৃক্ত: চরমোনাই পীর The story of success -Ashraf Ali Sohan চিত্রনায়িকা পরী মণি ও (এডিসি) সাকলায়েনের নতুন ভিডিও ফাঁস, দেখুন গোপালপুরে মসজিদে হামলায় বৃদ্ধ নিহত, সড়ক অবরাধ, আটক দুই কোম্পানীগঞ্জে দিনদুপুরে কলেজছাত্র অপহরণ ৪ দিন পরও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ বানিয়াচংয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের আবিস্কার নিয়ে বিজ্ঞান মেলা অনুষ্ঠিত

মুজিববর্ষে কওমী মাদরাসায় আয়োজন থাকা জরুরী: আল্লামা মাসউদ

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১১ মার্চ, ২০২০
  • ৩৮৭ Time View

আসছে ১৭-ই মার্চ বাংলাদেশ সাক্ষি হতে যাচ্ছে এক মাহেন্দ্রক্ষণের। স্বাধীনতার স্থপতি ও বাংলাদেশের গণমানুষের নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী হতে যাচ্ছে এদিন। ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ জন্ম নিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে বাংলাদেশ সাজবে উৎসবের সাজে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষাকেন্দ্রে থাকবে বিভিন্ন আয়োজন। এরই মধ্যে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে এই বার্ষিকীতে দেশের ধর্মীয় শিক্ষাধারা ‘কওমী মাদরাসায় কোন আয়োজন নেই’ শীর্ষক একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউন।

সেই প্রতিবেদনে আল-হাইআতুল উলয়া লি-জামিআতিল কওমিয়্যাহ’র সদস্য ও শোলাকিয়া ঈদগাহের খতিব মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ বলেছেন, মুজিববর্ষে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আয়োজন থাকা জরুরি বলে মনে করি। যারা বাংলাদেশ স্বীকার করেন, তারা বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকার করবেন কীভাবে। ব্যক্তি হিসেবে নয়, স্বাধীনতা সংগ্রামের নেতৃত্বদানকারী হিসেবে তার জন্য দোয়া ও আলোচনা সভা করা যেতেই পারে। তিনি জানান, আল-হাইআতুল উলয়া লি-জামিআতিল কওমিয়্যাহ এখন পর্যন্ত মুজিববর্ষ নিয়ে কোনও আলোচনা করেনি।

শোলাকিয়া ঈদগাহের খতিব মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ জানান, দেশের বিভিন্ন এলাকায় প্রাজ্ঞ আলেমরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি অনুরক্ত ছিলেন। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার প্রয়াত মুফতি নূরুল্লাহ, মালিবাগ মাদ্রাসার সাবেক প্রিন্সিপাল মাওলানা কাজী মু’তাসিম বিল্লাহ, মাওলানা আবদুল্লাহ বিন সাঈদ জালালাবাদীসহ অনেকে। এছাড়া মাওলানা আবদুর রশীদ তর্কবাগীশ দেওবন্দে শিক্ষিত আলেম এবং ‘৫৬ সাল থেকে ’৬৭ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগের সভাপতিও ছিলেন।

মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ আরও বলেন, আলেমদের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর সম্পর্কের বিষয়ে কিছু বিষয় তো প্রকাশ্যেই আছে। বিশেষ করে জাতির জনককে হত্যার পর জোরেশোরেই প্রতিবাদ করেছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার প্রয়াত মুফতি নূরুল্লাহ। তিনি জানান, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরদিন জুমার নামাজের খুতবায় এই হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ করেন মুফতি নূরুল্লাহ। ওই জুমায় তার ছেলে মুফতি কেফায়েত উল্লাহও ছিলেন।

আল-হাইআতুল উলয়া লি-জামিআতিল কওমিয়্যাহ’র আরেক সদস্য মাওলানা রুহুল আমীন বলেন, ‘উলয়ায় এটা নিয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, মুজিববর্ষে কোনও আয়োজন রাখা দরকার।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

পরিচালনা পর্ষদ

সম্পাদক ও প্রকাশক:
Admin
© ২০২০ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত.মুসলিম ভয়েস কোপেরেটিভ লি.
Design By NooR IT
themesba-lates1749691102