রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ০২:৩৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কাশ্মীরের জামা মসজিদ বন্ধ করে জুমার নামায পড়তে দেয়নি ভারত জুমার আলোচনায় খতিবদের ডেঙ্গু-গুজব-বন্যা নিয়ে বক্তব্য রাখার আহ্বান ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর মসজিদে গুলি করতে গিয়ে উল্টো ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন সাবেক মার্কিন সেনা! কোম্পানীগঞ্জে দিনদুপুরে কলেজছাত্র অপহরণ ৪ দিন পরও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ বানিয়াচংয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের আবিস্কার নিয়ে বিজ্ঞান মেলা অনুষ্ঠিত খুলনায় স্কুল ছাত্রীর নগ্ন ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ায় যুবক গ্রেফতার এ মাসের শেষের দিকে হতে পারে চট্টগ্রাম (চসিক) ভোট খুলনার বটিয়াঘাটায় শিশু হত্যাঃ আটক ২ ডিসেম্বরের প্রথম দিন মুক্তিযোদ্ধাদের ভালো বাসায় সিক্ত হলেন – এমপি শাওন খুলনায় বিশ্ব এইডস দিবস পালিত সৌদি আরবে এখনো টিকে আছে মুসা আ: এর স্মৃতি বিজরিত কূপ ও বাড়ি কর্ণফুলীতে সড়ক দুর্ঘটনায় মটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু লালমোহনে সামাজিক বিবাদে প্রাথমিক বি. শিক্ষকের উপর আক্রমণ প্রতিবাদ জানান জেলা শিক্ষক সমিতি

মিডিয়া কাভারেজ পেতে হলে এ বিষয়গুলো খেয়াল রাখুন : মুফতি এনায়েতুল্লাহ

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১১১ Time View

আলমগীর ইসলামাবাদী, চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধি : ইসলামি ঘরানার রাজনৈতিক দল, সংগঠন, প্রতিষ্ঠানের খবর মূলধারার গণমাধ্যমে খুব একটা দেখা যায় না। এমনকি এই ঘরানার বড় কেউ মারা গেলে কিংবা বিশেষ কিছু অর্জন করলে, বিদেশের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে সাফল্য অর্জন করলেও কাংখিতমানের নিউজ আসে না পত্রিকা, টেলিভিশন, অনলাইন ও রেডিওতে। এটা নিয়ে ইসলামি ঘরানার নেতা-কর্মী থেকে শুরু করে অনেকেই নানা সময় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। হালকা-পাতলা গালি-গালাজও করেন অনেকে। কিন্তু কেন গণমাধ্যমে তারা কাভারেজ পায় না, সেটার কারণ কেউ অনুসন্ধান করে না।

এক্ষেত্রে মূলধারার গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের সঙ্গে পরিচয় না থাকার চেয়ে তাদের অজ্ঞতা বেশি। যেমন ধরুন, আপনি বৃহস্পতিবার একটি প্রোগ্রাম করবেন, সেটা সম্পর্কে সাংবাদিকদের অবশ্যই বুধবারে অবগত করাতে হবে। এটা অনেকেই করেন না। তদ্রূপ বিদেশ থেকে কেউ পুরস্কার নিয়ে দেশে আসছেন, সেটাও আগে থেকে কেউ জানান না। অনেকে মনে করেন, আমি তো কাজ করছি, সাংবাদিকদের এটা দায়িত্ব প্রচার করা। হ্যাঁ, এটা তাদের প্রচার করা দায়িত্ব। কাজটা আপনার দৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ হলেও সাংবাদিকের কাছে গুরুত্বপূর্ণ নাও হতে পারে। আর হ্যাঁ, জনগুরুত্বপূর্ণ কোনো বিষয়, অপরাধ সংশ্লিষ্ট বিষয় অথবা মানুষের অধিকার সম্পৃক্ত বিষয় নিয়ে সাংবাদিকরা খবর প্রকাশ করেন।

আরেকটি বিষয়, অভিজ্ঞতার আলোকে বলছি, ইসলামি ঘরানার রাজনৈতিক দল, সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের কর্মসূচির খবরটি একটা প্রেসবিজ্ঞপ্তি আকারেও দিতে চান না। ফোনেই তথ্য দিয়ে দায়িত্ব সারতে চান। তখন হতে পারে, ওই সাংবাদিকের হাতে আরও কোনো কাজ থাকতে পারে। যেটা বেশি জরুরি। সেই সঙ্গে সব খবরই না দিয়ে, প্রয়োজনীয় খবরটা দিন। না হলে, আপনার সাংবাদিক বন্ধু তো বিরক্ত হবে! বন্ধুত্বের সূত্রে সব সময় সংবাদ প্রকাশ করা যায় না। সংবাদের মূল্য থাকতে হয়।

আরেকটি কথা, ইসলামি ঘরানার রাজনৈতিক দল, সংগঠন, প্রতিষ্ঠানের কর্তাদের অধিকাংশই সাংবাদিকবান্ধব নন। তারা তাদের প্রয়োজনে ফোন দিতে পারে কিন্তু কোনো সময় সাংবাদিক তাদের ফোন দিলে আর তাদের পায় না। মন্ত্রী-এমপি কিংবা সচিবদের কাছ থেকে ফোনে তথ্য নেওয়া যেমন সহজ, তাদের কাছ থেকে কোনো তথ্য পাওয়া কঠিন। তারা দায়িত্ব নিয়ে কোনো কথা বলতে চান না।

দেখুন, জেনারেল ধারার কিংবা দেশের সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহে তাদের কার্যক্রমের প্রচারের জন্য আলাদা জনসংযোগ বিভাগ রয়েছে। কিন্তু ইসলামি ঘরানার রাজনৈতিক দল, সংগঠন, প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ব্যক্তিকেন্দ্রিক জনসংযোগের প্রাধান্য বেশি। মনে রাখতে হবে, কোনো বিশেষ বা একক ব্যক্তির জন্য নয়, জনসংযোগ কার্যক্রম পরিচালিত হওয়া উচিত প্রতিষ্ঠানের সামগ্রিক কর্মকাণ্ডকে ঘিরে। আমাদের মহলে এটা অনুপস্থিত।

আরেকটি বিষয়, গণমাধ্যমের মূল্যমান সম্পর্কে ধারণা না থাকায়, অনেকে সবাইকে এক কাতারে মাপেন। ফলে অখ্যাত ও ছোট অনলাইন, ফেসবুক পেইজ কিংবা ইউটিউব চ্যানেলের সঙ্গে যখন মূলধারার গণমাধ্যমকে একচোখে দেখা হয়, সঙ্গত কারণেই মূলধারার গণমাধ্যমগুলো নিজেদের পার্থক্য ধরে রাখতে ইসলামি ঘরানার রাজনৈতিক দল, সংগঠন, প্রতিষ্ঠানের নিউজগুলো এড়িয়ে চলেন। যাতে বাজার নষ্ট না হয়। কারণ, আপনি তো ভোক্তা হিসেবে এই মিডিয়ার গ্রাহক নন, সুতরাং আপনার কভারেজ নিয়ে তারা কেন চিন্তা করবে? ফলে অখ্যাত ও ছোট অনলাইন, ফেসবুক পেইজ কিংবা ইউটিউব চ্যানেল নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়।

ইসলামি ঘরানার রাজনৈতিক দল, সংগঠন, প্রতিষ্ঠানের কর্মকাণ্ড উপযুক্ত গণমাধ্যমে প্রচারে উভয়পক্ষের মানসিকতার পরিবর্তন প্রয়োজন। একটি রাজনৈতিক দল, সংগঠন কিংবা প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে ভালো ধারণা, প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি গড়ে তোলা, গণমাধ্যমের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখা, প্রাতিষ্ঠানিক স্বার্থকে সমুন্নত রাখা গুরুত্বপূর্ণ কাজ। এটা ছাড়া আপনি কাজ করতে পারবেন না, এমন নয়। তবে ভুলেও প্রচারের আশা করা যাবে না। আর হ্যাঁ, প্রচারের আশা করলে ওপরের কথাগুলো মাথায় রাখুন। তাহলে আর ফোন করে আপনাকে অনুযোগ করতে হবে না- মিডিয়া আমাদের চোখে দেখে না।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

আমাদের সম্পর্কে

Muslim Voice
মুসলিম উম্মাহর সকল সংবাদ নিয়ে আমাদের আয়োজন।
পড়ুন, লিখুন, সংবাদ দিন।
© ২০২০ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত.মুসলিম ভয়েস কোপেরেটিভ লি.
Design By NooR IT
themesba-lates1749691102