সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ০২:০১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কাশ্মীরের জামা মসজিদ বন্ধ করে জুমার নামায পড়তে দেয়নি ভারত জুমার আলোচনায় খতিবদের ডেঙ্গু-গুজব-বন্যা নিয়ে বক্তব্য রাখার আহ্বান ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর মসজিদে গুলি করতে গিয়ে উল্টো ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন সাবেক মার্কিন সেনা! কোম্পানীগঞ্জে দিনদুপুরে কলেজছাত্র অপহরণ ৪ দিন পরও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ বানিয়াচংয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের আবিস্কার নিয়ে বিজ্ঞান মেলা অনুষ্ঠিত খুলনায় স্কুল ছাত্রীর নগ্ন ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ায় যুবক গ্রেফতার এ মাসের শেষের দিকে হতে পারে চট্টগ্রাম (চসিক) ভোট খুলনার বটিয়াঘাটায় শিশু হত্যাঃ আটক ২ ডিসেম্বরের প্রথম দিন মুক্তিযোদ্ধাদের ভালো বাসায় সিক্ত হলেন – এমপি শাওন খুলনায় বিশ্ব এইডস দিবস পালিত সৌদি আরবে এখনো টিকে আছে মুসা আ: এর স্মৃতি বিজরিত কূপ ও বাড়ি কর্ণফুলীতে সড়ক দুর্ঘটনায় মটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু লালমোহনে সামাজিক বিবাদে প্রাথমিক বি. শিক্ষকের উপর আক্রমণ প্রতিবাদ জানান জেলা শিক্ষক সমিতি

বাঁশখালী জলদী মখজনুল উলুম মাদরাসায় কোটি টাকার দুর্নীতি

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৩২ Time View

আলমগীর ইসলামাবাদী, চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধি : এতিমের কোটি কোটি টাকা সিন্ডিকেট করে লুটপাট!

আন্দরকিল্লা ইসলামী ব্যাংকে বাঁশখালী জলদী মখজনুল উলুম মাদরাসার “ওয়াকফে ইসলামী” নামে একটি একাউন্ট আছে। ওই একাউন্টে প্রতি বছর সৌদি আরবের দাতা সংস্থা ৬ শত এতিমের ভরণ পোষণ বাবদ ১ কোটি টাকা করে পাঠান। বিনা তদবীরেই ওই টাকা মাদরাসার একাউন্টে চলে আসে। মাওলানা আবদুস সোববহান সাহেব বছরের পর বছর সৌদি আরব সফর করে এই ব্যবস্থা করতে সক্ষম হয়েছিলেন। প্রায় ৩০ বছর যাবত আসছে এই টাকা। কিন্তু মাওলানা আবদুস সোবহান অসুস্থ হয়ে গেলে এই টাকা প্রথমে মেয়ে হাবিবা উত্তোলন করেন। পরে আল্লামা শফির পুত্র মাওলানা আনাস মাদানীর যোগসাজশে ইসলামী ব্যাংকের আন্দরকিল্লা শাখা থেকে পুত্র মাওলানা আবদুর রহমান এই টাকা তোলেন। টাকার ভাগ আনাস মাদানী ছাড়াও হেফাজত নেতা রুহী, মুফতি ফয়জুল্লাহসহ আরো অনেকের পকেটে যায় বলে জানা গেছে। মাদরাসা ও এতিমখানার টাকায় আবদুর রহমান ও পরিবারের সদস্যরা বিলাসী জীবন যাপন করেন। আবদুর রহমান চট্টগ্রাম শহরে আলীশান বাসা নেয়ার পাশাপাশি প্রাইভেট গাড়ীও খরিদ করেন। হেফাজতের রুহি ও আনাস মাদানী অংশের নেতাদের আনাগোনা ছিল শহরের সেই বাসা এবং বাঁশখালী জলদী মাদরাসায়। প্রায় ৩০ বছর ধরে ৬০০ এতিমের জন্য এত বিপুল পরিমাণ টাকা এলেও জলদী মাদরাসায় বিগত ১০/১২ বছর ধরে এতিমতো দুরের কথা সাধারণ ছাত্র পযর্ন্ত নেই। বর্তমানেও ছাত্র শিক্ষক স্টাফ মিলিয়ে পুরো মাদরাসায় একশ জন সদস্য আছে কিনা সন্দেহ। মাদরাসার বিশাল বিশাল ভবন পড়ে আছে বিরাণ ভূমি হিসেবে। জানা গেছে, বিগত ১৪ বছর যাবত এতিমদের কোন সুযোগ সুবিধা দেয়া হচ্ছেনা এই মাদরাসায়। গত বৃহস্পতিবার হাটহাজারী মাদরাসার পরিচালক পদ থেকে আল্লামা শাহ আহমদ শফির পদত্যাগ এবং পুত্র আনাস মাদানীকে বহিস্কারের পর বাঁশখালীর জলদী মাদরাসা নিয়ে আনাস মাদানী সিন্ডিকেটের নানা অপকর্ম ও দুর্নীতি এখন মানুষের মুখে মুখে আলোচিত হচ্ছে। এই বিষয়ে মাদরাসার একাউন্টগুলো জব্দসহ তদন্ত পুর্বক ব্যবস্থা নিতে এলাকাবাসী হাটহাজারী মাদরাসার নবগঠিত শুরার হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

আমাদের সম্পর্কে

Muslim Voice
মুসলিম উম্মাহর সকল সংবাদ নিয়ে আমাদের আয়োজন।
পড়ুন, লিখুন, সংবাদ দিন।
© ২০২০ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত.মুসলিম ভয়েস কোপেরেটিভ লি.
Design By NooR IT
themesba-lates1749691102