শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কাশ্মীরের জামা মসজিদ বন্ধ করে জুমার নামায পড়তে দেয়নি ভারত জুমার আলোচনায় খতিবদের ডেঙ্গু-গুজব-বন্যা নিয়ে বক্তব্য রাখার আহ্বান ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর মসজিদে গুলি করতে গিয়ে উল্টো ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন সাবেক মার্কিন সেনা! ইন্টারনেট সেবা নিতে চাইলে কোরআনে শপথ নিতে হবে মসজিদে নামাজ পড়তে গিয়ে আয়ের একমাত্র অবলম্বন ভ্যানটি চুরি হয় বিমানবন্দরে লাগেজ হারিয়ে গেলে ফিরে পাওয়ার উপায় আমাদের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতির সাথে হিজরী সন সম্পৃক্ত: চরমোনাই পীর The story of success -Ashraf Ali Sohan চিত্রনায়িকা পরী মণি ও (এডিসি) সাকলায়েনের নতুন ভিডিও ফাঁস, দেখুন গোপালপুরে মসজিদে হামলায় বৃদ্ধ নিহত, সড়ক অবরাধ, আটক দুই কোম্পানীগঞ্জে দিনদুপুরে কলেজছাত্র অপহরণ ৪ দিন পরও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ বানিয়াচংয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের আবিস্কার নিয়ে বিজ্ঞান মেলা অনুষ্ঠিত খুলনায় স্কুল ছাত্রীর নগ্ন ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ায় যুবক গ্রেফতার

কবরে গিয়েও সুযোগ পেলে ত্রান চুরি করতে আপত্তি করবেনা

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ১০ এপ্রিল, ২০২০
  • ২৯৯ Time View

২০২০ সন। করোনামধ্যবর্তী সময়ে যা হবে। লোকজনের চাকরী-বাকরী থাকবেনা। যারা করোনার আগে এবং তারপরের কোন সুবিধা নিতে পারেনি তাদের তেমন ব্যবসাও নেই। সঙ্গত কারনেই চোর-ছ্যাঁচরের উপদ্রব বেড়ে যাবে ভীষণ।

কিছু দিন পর পরই হয়তো গভীর রাতে প্রতিবেশীদের ‘চোর! চোর!’ চিৎকারে ঘুম ভাঙবে। বাড়ী এবং পাড়ার সবারই ঘুম শেষ, দৌড়াদৌড়ি ইত্যাদি। সে এক বিশাল উত্তেজনাকর পরিস্থিতি হতে পারে বলাই বাহুল্য।কারো কারো বাবা কিংবা বড় ভাই বা অভিভাবক শহরে কিংবা প্রবাসে যার যার স্তরে মুরুব্বী বলেই হয়তো চোর ধরা পড়লে সবাই মিলে প্রায়ই চোর ধরে নিয়ে যাবে কোনো এক বাড়ীতেই তার বিচার করতে।

অনেকেই খুব অবাক হয়ে যাবে চোর দেখতে হুবহু মানুষের মত দেখে। কল্পনার ধোঁয়াটে ভয়ঙ্কর আর ভুতুরে জন্তুর সাথে তার কোন মিল নেই। ভয়ের পরিবর্তে করুণার উদ্রেক হবে। হয়তো খালি গা অথবা নোংরা ছেঁড়া জামা কাপড়, হাঁটু পর্যন্ত কোন রকমে ম্যানেজ করা একটা লুঙ্গি। স্বাস্থ্যের অবস্থাও একই রকম। তবে চোরদের এই চেহারা যুবক সম্প্রদায়ের যথেষ্ট করুণা উদ্রেক করতে তখনও হয়তো ব্যার্থ হবে।

তারা তাদের কর্মহীন বসে থাকা কর্মক্ষম হাতের শক্তিটুকু যাচাই করে নিতেন চোরদের ওপরই। তবে তা চলবে সেই দৃশ্যে একজন খুবই নরম মনের মানুষের আবির্ভাব হওয়ার আগ পর্যন্ত। সম্মান আর শ্রদ্ধায় কারো সাহস হবেনা না এই নরম ও শান্ত প্রকৃতির মানুষটার সামনে চোরের গায়ে হাত দেয়ার। ‘খবরদার মারবি না। বেঁধে রাখ, সকালে পুলিশে দিস দরকার হলে’ বলে তিনি চলে যাবেন চোরের জন্য হয়তো খাবার এর ব্যবস্থা করতে। গ্রীষ্ম কি শীত, মাঝ রাত বা ভোর রাত,চোর সংক্রান্ত এইটা হয়ে যেতে পারে সেই পাড়া,মহল্লা বা গ্রামের রুটিন। প্রথমে তাগড়া যুবক আর পুঁচকে পোলাপাইনের মারধোর আর তারপর আমার একজন সৎ,নিষ্ঠাবান,দরদী মানুষের আপ্যায়ন। কখনো কখনো চোরকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হবে পাড়া,মহল্লা বা গ্রামের লোকজন। পুলিশে দেয়া আর হবে না।

কাছে থেকে চোরের খাওয়া নিশ্চিত করবেন কোনো না কোনো দিল দরদী,সম্মানিত ব্যক্তির। তার বক্তব্য হবে চোর বাধ্য হয়ে চুরি করে, ডাকাতি তো আর করে না। কাজ নেই খাবার নেই, করবে কি? ব্যাস, সেই দিল দরদী ব্যক্তির এক রকম নামই হয়ে যাবে চোরের আপনজন! বহু বছর চলে গেল। বিলবোর্ডে অনেক এমডিজি গোল এচিভ করা সত্যেও এখনও মানুষের চুরি করতে হয়। শুধু স্বল্প সংখ্যক করে ঠেকায় পড়ে। কারনগুলোও আবার আগের মত দুয়েকটা প্যারামিটারে সীমাবদ্ধ নেই, অনেক কারন। সারাদেশ তথা পুরো বিশ্বে এখন করোনা আতংক।এমন কঠিন ও দুর্বিষহ সময়েও ত্রান চোরদের উৎপাত বড্ড বেড়ে গেছে।

কিন্তু ঝামেলা হলো চোর কোথায় পাবো? শহরেও ভাড়া করা বাড়ীতে অহরহ চুরি হয়।সেই সাথে অসহায়দের ত্রানও। অনেক স্মার্ট সেই ত্রান চোররা, ধরা খেয়েছে অনেক কিন্তু উপযুক্ত বিচার হয়নি একজনেরও। অনেক জায়গায় ধরা পড়ার গল্প শুনেছি। তবে ধরা পড়ার পর এদের হয় মর্গে বা পুলিশে চালান করা হয়ে যায় খুব দ্রুত দু একটা সেল্ফি তুলে। আজকাল ত্রানচোরের বিচার করার মত কেউ নেই বোধ হয়। কি করি? জন্মান্তরের দোস্ত বিবেককে জিজ্ঞেস করি। হতাশ করে সেও। ‘চোরেরা আজকাল পতাকাবাহী গাড়িতেও চরে দোস্ত। আমাদের ধরা ছোঁয়ার বাইরে। এমনকি দুদক, এনবিআরেরও। তুমি নাগাল পাবে কি করে? দাওয়াত দেওয়া তো দূরের বিষয়। দেখো বরং অন্য কোন উপায়ে কোন চোরের সুনজরে পড়তে পারো কি না।জীবন পাল্টে যেতে পারে। ত্রান চোরেরা মানুষ হবে না………

মরলেও হবে ত্রান চোর! আর কবরে গিয়েও সুযোগ পেলে ত্রান চুরি করতে আপত্তি করবেনা।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

পরিচালনা পর্ষদ

সম্পাদক ও প্রকাশক:
Admin
© ২০২০ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত.মুসলিম ভয়েস কোপেরেটিভ লি.
Design By NooR IT
themesba-lates1749691102