fbpx
বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কাশ্মীরের জামা মসজিদ বন্ধ করে জুমার নামায পড়তে দেয়নি ভারত জুমার আলোচনায় খতিবদের ডেঙ্গু-গুজব-বন্যা নিয়ে বক্তব্য রাখার আহ্বান ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর মসজিদে গুলি করতে গিয়ে উল্টো ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন সাবেক মার্কিন সেনা! প্যানেল প্রত্যাশীদের আমরন অনশনে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন অনেকে চাটখিলে প্রবাসীর স্ত্রী কে ধর্ষনের অভিযোগে যুবলীগ নেতা শরীফ গ্রেফতার! খুলনার ভাষা সৈনিক সাবেক সাংসদ দাদুভাইয়ের জানাজা ও দাফন সম্পন্ন আনোয়ারায় তৈলারদ্বীপে ২ বসতবাড়ি পুড়ে ছাই খুলনার ভাষা সৈনিক এম নুরুল ইসলামের ইন্তেকাল চট্টগ্রামে নেজামে ইসলাম পার্টির উদ্যোগে আল্লামা আহমদ শফি রহ. ও আল্লামা শাহ্ তৈয়ব রহ.স্মরণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত দামুড়হুদায় আবাসিক হোটেলে অনৈতিক কাজের অভিযোগে শিক্ষার্থী ও বিজিবি সদস্য আটক হ‌বিগ‌ঞ্জে খুন-ধর্ষণে জড়িতদের ফাঁসির আইন বাস্তবায়ন করার দাবী‌তে যুব জ‌মিয়‌তের মানববন্ধন খুলনার পাইকগাছায় উপ-নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থী জয়ী লোহাগাড়ায় ইউপি নির্বাচনে দায়ীত্বরত ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে ককটেল হামলা

দীর্ঘদিন পরে কাজে ফিরলো খুলনার পাটকল শ্রমিকরা

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৮০ Time View

মুসলিম ভয়েস ডেস্ক | আগামী ১৬ জানুয়ারির মধ্যে জাতীয় মজুরি কমিশন-২০১৫ প্রদান করা হবে, এ আশ্বাসের পর কাজে যোগ দিয়েছেন খুলনাঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকলের শ্রমিকরা।

টানা পাঁচ দিন আমরণ অনশন কর্মসূচির পর শনিবার (৪ জানুয়ারি) ভোর থেকেই কাজে যোগ দিতে শুরু করেন তারা। ফলে মিলে উৎপাদন শুরু হয়। প্রাণচাঞ্চল্য ফিরেছে গোটা শিল্পাঞ্চলে।

রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল সিবিএ-ননসিবিএ সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক মো. মুরাদ হোসেন সকাল ৯টায় বলেন, ১৫ দিনের মধ্যে মজুরি কমিশনের স্লিপ দেওয়া হবে মর্মে আমরা আন্দোলন প্রত্যাহার করেছি। আগামী ১৬ জানুয়ারি আমাদের স্লিপ দেওয়া হবে। শনিবার ভোর ৬টা থেকে শ্রমিকরা কাজে যোগদান করেছেন।

তিনি বলেন, দেশের উল্লেখযোগ্যসংখ্যক পাটকল খুলনায়। খুলনার সাতটি পাটকলে স্থায়ী ও অস্থায়ী প্রায় ৫০ হাজার শ্রমিক রয়েছেন। যারা সবাই কাজে যোগদান করেছেন।

মিলগুলো হচ্ছে- ক্রিসেন্ট জুট মিল, খালিশপুর জুট মিল, দৌলতপুর জুট মিল, প্লাটিনাম জুবিলি জুট মিল, স্টার জুট মিল, আলিম জুট মিল ও ইস্টার্ন জুট মিল। ফলে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে এসেছে শিল্পাঞ্চলে।

বাংলাদেশ পাটকল করপোরেশন (বিজেএমসি) সূত্রে জানা যায়, আমরণ অনশনের সময় খুলনাঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ব ৯ পাটকলের মধ্যে যশোরের জেজেআই ও কারপেটিং জুট মিল বাদে বাকি সাতটি পাটকলের উৎপাদন সম্পূর্ণ বন্ধ ছিল। এ পাটকলগুলোতে প্রতিদিন উৎপাদনের লক্ষমাত্রা ২৭২ দশমিক ১৭ মেট্রিক টন। সেখানে চালু থাকা ওই দু’টি পাটকলে উৎপাদন হয়েছে মাত্র ৮৬ দশমিক ৩৯ মেট্রিক টন। পাটকলগুলোতে প্রতিদিনের উৎপাদিত পণ্যের বাজার মূল্য প্রায় ১ কোটি টাকা। সেই হিসেবে শ্রমিকদের ৫ দিনের অনশনে ৫ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

শ্রমিকদের দাবি নিয়ে ২০১৯ সালের ১৫, ২২ ও ২৬ ডিসেম্বর তিন দফা বৈঠক হলেও তাতে কোনো সুফল আসেনি। সর্বশেষ ২৬ ডিসেম্বরের বৈঠকে মজুরি কমিশন বাস্তবায়নের বিষয়ে কোনো সুরাহা না হওয়ায় ওই দিন ২৯ ডিসেম্বর দুপুর থেকে আবারও ১১ দফা দাবিতে অনশন করার ঘোষণা দেন শ্রমিক নেতারা। সেই অনুযায়ী শ্রমিকরা অনশন কর্মসূচি পালন করেন।

বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) রাতে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে শ্রমিক নেতাদের বৈঠক শেষে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে পাটকল শ্রমিকদের নতুন মজুরি কাঠামো অনুযায়ী বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধ করা হবে বলে ঘোষণা দেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী। এরপর অনশন কর্মসূচি প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন শ্রমিক নেতারা।

সংবাদদাতা : শেখ নাসির উদ্দিন, খুলনা প্রতিনিধি।

Facebook Comments

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© ২০২০ প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত.মুসলিম ভয়েস কোপেরেটিভ লি.
Design By NooR IT
themesba-lates1749691102